মঙ্গলবার, ১৪ Jul ২০২০, ০৩:৫৬ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
২৪ বছরের রেকর্ড ভেঙেছে তিস্তা ৯৬’র বন্যার মতো ভয়াবহ রূপ নিচ্ছে তিস্তা তিস্তায় সব  কয়টি গেট খুলে দিলেও পানির গতি নিয়ন্ত্রণ করা যাচ্ছে না  তীরবর্তী মানুষদের সরে যেতে মাইকিং রেড অ্যালার্ট,জারি তিস্তার নদী ভাঙন এলাকা পরিদর্শনে পুলিশ সুপার আবিদা সুলতানা নারীদের কে সামনের সারিতে আনতে বর্তমান সরকার নিরলসভাবে কাজ করছে ইউএনও মুজিববর্ষে কালীগঞ্জে ঐতিহ্য শিবরাম পাবলিক স্কুলে পুলিশের বৃক্ষ রোপন মুজিববর্ষ উপলক্ষে লালমনিরহাট জেলা পুলিশের বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি পালিত কালীগঞ্জে চুরি হওয়া ল্যাপটপ ও প্রজেকটর উদ্ধারে কালীগঞ্জ থানা পুলিশের প্রেস ব্রিফিং কালীগঞ্জে করোনা প্রতিরোধ কমিটির সভা অনুষ্ঠিত সংবাদ প্রকাশের পর কবি শেখ ফজলল করিমের পাঠাগার পরিদর্শন করলেন ইউএনও রবিউল হাসান উপহার দিলেন বই কালীগঞ্জে নদী ভাঙ্গন এলাকা পরিদর্শনে উপজেলা প্রশাসন
বিয়ের আগে বর-কনের রক্ত পরীক্ষা রুল জারি হাইকোর্ট

বিয়ের আগে বর-কনের রক্ত পরীক্ষা রুল জারি হাইকোর্ট

বিয়ের আগে বর-কনের রক্ত পরীক্ষা করা বাধ্যতামূলক করা হবে না কেন, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট। একইসঙ্গে বাংলাদেশের সব চাকরিতে ঢোকার আগে ডোপ টেস্ট ও মেডিকেল সার্টিফিকেট দাখিল কেন বাধ্যতামূলক করা হবে না, তাও জানতে চাওয়া হয়েছে।

আজ সোমবার এক রিট আবেদনের শুনানি নিয়ে বিচারপতি জে বি এম হাসান ও বিচারপতি খাইরুল আলমের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ রুল জারি করেন।

বিয়ের আগে বর ও কনের রক্তে থ্যালাসেমিয়া ও মাদকের অস্তিত্ব আছে কি না, তা পরীক্ষা করে মেডিকেল সার্টিফিকেট দাখিল বাধ্যতামূলক চেয়ে গত ৫ জুলাই একটি রিট দায়ের করা হয়।

ওই রিটের শুনানি করেই আজ এ রুল জারি করা হয়। অ্যাডভোকেট এখলাছ উদ্দিন ভূঁইয়া আদালতে রিট আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন।

রিট আবেদনে বলা হয়, থ্যালাসেমিয়া আক্রান্ত ব্যক্তির সঙ্গে একই রোগে আক্রান্ত কোনও রোগীর বিয়ে হলে অনাগত সন্তান বিকলাঙ্গ হওয়ার সম্ভাবনা আছে বলে বিশেষজ্ঞরা মতামত দিয়েছেন।

এ ছাড়া দেশে প্রায় ৭০ লাখ মানুষ মাদকাসক্ত। এর মধ্যে শতকরা ৬৫ ভাগই তরুণ। বিভিন্ন পরিসংখ্যান অনুযায়ী বর্তমানে বিবাহ-বিচ্ছেদের অন্যতম কারণ মাদকাসক্তি।

বিভিন্ন সিটি করপোরেশনের সালিশী পরিষদের তথ্য অনুযায়ী নারীদের অভিযোগের কারণ হচ্ছে স্বামীর শারীরিক অক্ষমতা। বিভিন্ন ধরনের মাদক যেমন- ইয়াবা, হেরোইন, অ্যালকোহল ইত্যাদি সেবনে পুরুষরা পুরুষত্বহীন হয়ে যাচ্ছে।

নিকাহ নামার ৩ ও ৪ নম্বর দফায় বর-কনের জন্ম সনদের পাশাপাশি ১৭ নম্বর দফায় ডাক্তারি সার্টিফিকেট (ডোপ টেস্ট সার্টিফিকেট) বাধ্যতামূলক হলে বর-কনের ভবিষ্যত সংসার ও অনাগত সন্তানের জীবন রক্ষা পাবে।

রিটের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট এখলাছ উদ্দিন ভূঁইয়া। মন্ত্রিপরিষদ সচিব, আইন সচিব, স্বাস্থ্য সচিব, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ও আইজিপিকে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

শেয়ার করুন:

সংবাদ টি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ভাষা পরিবর্তন করুন




© All rights reserved © 2018 লালমনিরহাট অনলাইন নিউজ
Design BY PopularHostBD