সোমবার, ২৫ জানুয়ারী ২০২১, ০৪:১৮ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
পেশাগত দক্ষতা বৃদ্ধিতে প্রযুক্তিতে গুরুম্ব দেওয়ার আহ্বান ড. বশিরের কালীগঞ্জে ৩০ বছর ধরে ঝুঁপড়িতে রাঁতকাটে গৌর দাসের! কালীগঞ্জে ভূমিহীন ও গৃহহীন ১৫০ পরিবারের মাঝে জমি ও গৃহ প্রদান কালীগঞ্জে মুজিববর্ষ উপলক্ষে ১৫০ পরিবার পাচ্ছে প্রধানমন্ত্রীর উপহার জমি ও ঘর  হাতে টাকা ছিলনা,অভিযোগ করলেন আড়াই লক্ষ টাকা ছিনতাইয়ের লালমনিরহাটে ঘন কুয়াশা,বেড়েছে ঠান্ডাজনিত রোগ–নেই শীতবস্ত্র তিস্তায় এখন পানিও নেই মাছও নেই কষ্টে দিন কাটাচ্ছি তিস্তা পাড়ের জেলেরা  পাটগ্রামের ‘ইউএনও কে দ্রুত অপসারণ করা না হলে রাস্তাঘাট অচলের হুঁশিয়ারী ইউএনওর আশ্বাসে ঘুরেও জুটলোনা কিছুই লালমনিরহাট অনলাইন নিউজে সংবাদ প্রকাশের পর ফাতেমার ভাঙ্গা বাড়ীতে ডিসি,ঘর দেয়ার আশ্বাস
স্ত্রীর মর্যাদা না দিলে আত্মহত্যা করবেন সুমি!

স্ত্রীর মর্যাদা না দিলে আত্মহত্যা করবেন সুমি!

লালমনিরহাটের কালীগঞ্জ উপজেলায় স্ত্রীর মর্যাদার দাবিতে স্বামীর বাড়িতে অবস্থান করছেন সুমি খাতুন(১৮) নামের এক নববধূ। 

ঘটনাটি ঘটেছে লালমনিরহাটের কালীগঞ্জ উপজেলার কাকিনা ইউনিয়নের চাঁপারতল এলাকায়।  বৃহস্পতিবার(১০ জানুয়ারি) এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত সুমি খাতুন তার স্বামী রিয়াদের বাড়িতে অবস্থান করছেন। 

এদিকে বৃহস্পতিবার(৩ জানুয়ারি) সকালে নববধু সুমি খাতুনের উপস্থিতি টের পেয়ে স্বামী রিয়াদ ও তার পরিবার লোকজন বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে গেছেন।  অবশেষে ৮দিন ধরে স্বামীর বাড়ির গেটে অবস্থান করছেন ওই নববধূ।  

সুমি খাতুন অভিযোগ করেন, কালীগঞ্জ উপজেলার কাকিনা ইউনিয়নের গোপালরায় এলাকার মোজাম্মেল হকের মেয়ে সুমি খাতুন ও একই ইউনিয়নের চাঁপারতল এলাকার শাহাজানের ছেলে বর রিয়াদের সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্কের জেরে গাজীপুরের সখিপুর এলাকায় পালিয়ে গিয়ে ৫মাস আগে পরিবারের কাউকে না জানিয়ে রিয়াদ ও সুমি বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন।  ভালোই চলছিলো তাদের সংসার।  গত ১১ ডিসেম্বর রিয়াদের বাবা শাহাজাহান ভয় দেখালে রিয়াদ তার বাবার নির্দেশে সুমিকে একা রেখে পালিয়ে যায়। 

পরে সুমি কোনরুপ কূলকিনারা না পেয়ে স্বামীর বাড়িতে চলে আসে।  রিয়াদের বাবা শাহাজান প্রভাবশালী হওয়ার কারনে তারা মেয়েটি স্ত্রীর স্বীকৃতি দিতে রাজি হয়নি।  ফলে এলাকার কিছু প্রভাবশালী লোকের মাধ্যমে অনশনরত সুমিকে ও তার দরিদ্র বাবা মোজাম্মেলকে ভয়ভীতি দেখিয়ে আসছে।  এর মধ্যে তার সাথে অনেকবার যোগাযোগ করার চেষ্টা করেও ব্যর্থ হয়েছি।  এখন সে (রিয়াদ) আমাকে ‘স্ত্রী’ বলে অস্বীকার করছে। 

তাই আমি তার বাড়িতে স্ত্রীর অধিকার নিয়ে অবস্থান করছি।  স্ত্রীর মর্যাদা না পাওয়া পর্যন্ত এ বাড়িতেই অবস্থান করবো।  স্ত্রীর মর্যাদা না পেলে প্রয়োজনে আমি এখানে আত্মহত্যা করবো। 

এ বিষয়ে কাকিনা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বিষয়টি হস্তক্ষেপ করলে তিনি সমাধান দিতে ব্যর্থ হয়েছেন।  ইউপি সদস্য আতাউজ্জামান রন্ঞ্জু বলেন,  দরিদ্র পরিবারের মেয়েটি যেনো স্ত্রীর স্বীকৃতি ফিরে পায়।  সে জন্য এলাকাবাসী কে এগিয়ে আসতে হবে।  

ইউপি সদস্য পাইরুল ইসলাম হড্ডু বলেন, আমরা সমাধানের চেষ্টা চালিয়ে ব্যর্থ হয়েছি। এলাকাবাসী এর সুষ্ঠ সমাধান চায়।  কালীগঞ্জ থানা’র এসআই সাইদুল হক বিষয়টি প্রাথমিক ভাবে তদন্ত করে ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। 

শেয়ার করুন:

সংবাদ টি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ভাষা পরিবর্তন করুন




© All rights reserved © 2018 লালমনিরহাট অনলাইন নিউজ
Design BY PopularHostBD