বুধবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২০, ০২:৩৬ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
”মুলার মণ ১০ টাকা ”১০ মণ মুলায় ১কেজি চাল! হাতীবান্ধায় ডাকালীবান্ধা বাজার জামে মসজিদ এর উদ্বোধন করলেন মোতাহার হোসেন এমপি মুজিববষে কালীগঞ্জের দুর্গম চরের ১৬৯১ পরিবারে বিদ্যুতের আলো কালীগঞ্জে ঔষধ প্রশাসন ও কেমিস্ট এন্ড ড্রাগিস্ট সমিতির মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত কালীগঞ্জে বাস চাপায় মা-ছেলে নিহত, আহত ৫ মেধা তোমার মূল হাতিয়ার, অদম্য ইচ্ছা, কঠোর অধ্যবসায় রাকিবুজ্জামান আহমেদ উত্তর অঞ্চলের মানুষকে আধুনিক স্বাস্থ্যসেবা পৌঁছে দিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বদ্ধপরিকর জনপ্রিয় “হামার লালমনি গ্রুপ” ডিজেবল সেই দুলালের স্বপ্নের দোকান তৈরি করে দিলেন স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন মামাজ কালীগঞ্জে ছাগল বাঁচাতে গিয়ে ট্রেনের ধাক্কায় মৃত্যু
করোনার ওষুধ ‘রেমডেসিভির’ ব্যবহারের অনুমতি যুক্তরাষ্ট্রের

করোনার ওষুধ ‘রেমডেসিভির’ ব্যবহারের অনুমতি যুক্তরাষ্ট্রের

আন্তর্জাতিক ডেস্ক,ক রোনাভাইরাসে বিপর্যস্ত মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। প্রতিদিনই বাড়ছে মৃত্যুর সংখ্যা। এমন অবস্থায় জরুরি প্রয়োজনে করোনার নতুন ওষুধ ‘রেমডেসিভির’ এর ব্যবহারের অনুমতি দিয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। এর আগে জরুরি ক্ষেত্রে হাইড্রোক্সাইক্লোরোকুইনের ব্যবহারেরও অনুমতি দিয়েছিল যুক্তরাষ্ট্র।

যুক্তরাষ্ট্রের ফুড এন্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশন (এফডিএ) জরুরি পরিস্থিতিতে পরীক্ষামূলকভাবে করোনা চিকিৎসায় রেমডেসিভি ওষুধ ব্যবহারের অনুমতি দিয়েছে৷ শুক্রবার হোয়াইট হাউসে এফডিএ এর পদক্ষেপের কথা ঘোষণা করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প৷

এই ওষুধ করোনভাইরাস রোগীদের দ্রুত পুনরুদ্ধার করতে সহায়তা করে বলে মনে করা হচ্ছে৷ কোভিড-১৯ এর বিরুদ্ধে লড়াইয়ে এটিকে প্রথম ওষুধ হিসেবে দেখানোর চেষ্টা করছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র।

করোনায় বিশ্বব্যাপী দুই লাখ ৩৯ হাজার মানুষের মৃত্যু হয়েছে যার মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রেরই ৬৫ হাজার। মার্কিন সরকার কর্তৃক এক গবেষণা থেকে প্রাপ্ত প্রাথমিক ফলাফলের পরে এফডিএ জানিয়েছিল যে, গিলিয়ড সায়েন্সেসের রিম্যাডিসিভির হাসপাতালে ভর্তি কোভিড-১৯ রোগীদের জন্য পুনরুদ্ধারের সময় ৩১ শতাংশ কমেছে৷ অর্থাৎ গড়ে চার দিন কমেছে।

সম্প্রতি ১,০৬৩ জন করোনা আক্রান্ত রোগীর শরীরে এই ওষুধ পরীক্ষা করা হয়েছে৷ একটি তুলনামুলুক গ্রুপকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে যা কেবলমাত্র স্বাভাবিকভাবে যত্ন নেওয়া হয়েছিল৷ রেমডেসিভির এর প্রভাবগুলি কঠোরভাবে মূল্যায়ন করা হয়েছে৷

পরীক্ষার পর দেখা গিয়েছে, যাদের শরীরে এই ওষুধ ব্যবহার করা হয়েছে, তারা অন্যদের গড়ে ১৫ দিনের তুলনায় ১১ দিনের মধ্যে হাসপাতাল ছেড়ে যেতে সক্ষম হয়েছেন। ড্রাগটি মৃত্যুর পরিমাণও হ্রাস করতে পারে, যদিও এটি এখনও অবধি প্রকাশিত আংশিক ফলাফল থেকে নিশ্চিত নয়।

যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় স্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটস অফ হেলথের ডা. অ্যান্টনি ফাউসি বলেন, ওষুধটি এই গবেষণার মতো গুরুতর অসুস্থ কোভিড -১৯ রোগীদের চিকিৎসার একটি নতুন ধাপে পরিণত হবে। ওষুধটি হালকা অসুস্থ ব্যক্তিদের মধ্যে পরীক্ষা করা হয়নি৷ বর্তমানে একটি হাসপাতালে আইভিয়ের মাধ্যমে দেওয়া হয়।

এই ওষুধ তৈরির প্রতিষ্ঠান গিলিয়েড জানিয়েছে, বর্তমানে এই ওষুধের স্টক অল্প৷ তবে প্রয়োজনে বেশি পরিমাণে উত্পাদন বাড়িয়ে তোলা হবে।

করোনাভাইরাস চিকিত্সার জন্য এখনও কোনো ওষুধ অনুমোদিত নয়৷ এর আগে মার্কিন প্রেসিডেন্ট কোভিড-১৯ এর সম্ভাব্য চিকিত্সায় এফডিএ অনুমোদিত ম্যালেরিয়া ওষুধ হাইড্রোক্সাইক্লোরোকুইনকে জরুরী ব্যবহারের অনুমোদন দিয়েছিল। তবে কোনো বড় পরীক্ষায় ওষুধটির কাজ করছে কিনা, তা দেখা হয়নি৷ যদিও ট্রাম্প ভারত থেকে প্রচুর হাইড্রোক্সাইক্লোরোকুইন আমদানি করেছে৷

শেয়ার করুন:

সংবাদ টি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ভাষা পরিবর্তন করুন




© All rights reserved © 2018 লালমনিরহাট অনলাইন নিউজ
Design BY PopularHostBD