মঙ্গলবার, ১৪ Jul ২০২০, ০৩:০০ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
২৪ বছরের রেকর্ড ভেঙেছে তিস্তা ৯৬’র বন্যার মতো ভয়াবহ রূপ নিচ্ছে তিস্তা তিস্তায় সব  কয়টি গেট খুলে দিলেও পানির গতি নিয়ন্ত্রণ করা যাচ্ছে না  তীরবর্তী মানুষদের সরে যেতে মাইকিং রেড অ্যালার্ট,জারি তিস্তার নদী ভাঙন এলাকা পরিদর্শনে পুলিশ সুপার আবিদা সুলতানা নারীদের কে সামনের সারিতে আনতে বর্তমান সরকার নিরলসভাবে কাজ করছে ইউএনও মুজিববর্ষে কালীগঞ্জে ঐতিহ্য শিবরাম পাবলিক স্কুলে পুলিশের বৃক্ষ রোপন মুজিববর্ষ উপলক্ষে লালমনিরহাট জেলা পুলিশের বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি পালিত কালীগঞ্জে চুরি হওয়া ল্যাপটপ ও প্রজেকটর উদ্ধারে কালীগঞ্জ থানা পুলিশের প্রেস ব্রিফিং কালীগঞ্জে করোনা প্রতিরোধ কমিটির সভা অনুষ্ঠিত সংবাদ প্রকাশের পর কবি শেখ ফজলল করিমের পাঠাগার পরিদর্শন করলেন ইউএনও রবিউল হাসান উপহার দিলেন বই কালীগঞ্জে নদী ভাঙ্গন এলাকা পরিদর্শনে উপজেলা প্রশাসন
খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের সাথে বহিরাগতদের সংঘর্ষ, অগ্নিসংযোগ

খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের সাথে বহিরাগতদের সংঘর্ষ, অগ্নিসংযোগ

খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের খাজা খান জাহান আলী হলের সামনের মাঠে ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে শিক্ষার্থীদের সাথে বহিরাগত দর্শকদের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে।

শুক্রবার (১২ অক্টোবর) বিকালে সংঘর্ষের এ ঘটনা ঘটে। সার্কিট হাউজ ময়দানে উন্নয়ন মেলার কারণে খুলনা সিনিয়র ডিভিশন ফুটবল লীগে টাউন ক্লাব ও খালিশপুরের এসবি আলী ক্লাবের মধ্যকার ম্যাচ চলাকালে এ সংঘর্ষ ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও শিক্ষার্থীরা জানায়, খুলনা সিনিয়র ডিভিশন ফুটবল লীগের পঞ্চম ম্যাচটি খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের মাঠে অনুষ্ঠিত হচ্ছিলো। খেলা শুরুর কিছুক্ষণ পর বহিরাগত সমর্থকরা খালিশপুর এসবি আলী ক্লাবের খেলোয়াড়দের লক্ষ্য করে কটূক্তি শুরু করে।

একপর্যায়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৫তম ব্যাচের একজন শিক্ষার্থী এর প্রতিবাদ করেন। প্রতিবাদী শিক্ষার্থীকে ওই সমর্থকরা ব্যাপক মারধর করেন। এ খবর ক্যাম্পাসে ছড়িয়ে পড়লে আবাসিক হলগুলোর শিক্ষার্থীরা একত্রিত হয়ে খেলার মাঠের আক্রমণকারী সমর্থকদের মারধর করেন। এ সময় চারটি মোটর সাইকেলে অগ্নিসংযোগ করে বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা।

মারধর করে বহিরাগত ৭-৮ জনকে আটকেও রাখেন শিক্ষার্থীরা। সংঘর্ষে দুই পক্ষের ১৩ জন আহত হন।

ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে খুলনা জেলা ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি এড. সাইফুল ইসলাম বলেন, ‘খেলা বন্ধ করে ছেলেদের ফিরিয়ে নিয়ে এসেছি। এখন সব ঠিক আছে।’

হরিণটানা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাসিম খান বলেন, ‘সমর্থক ও বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মধ্যে ভুল বোঝাবুঝিকে কেন্দ্র করে ঘটনার সূত্রপাত। মোটরসাইকেলে অগ্নিসংযোগ, মারপিট ও কয়েকজনকে আটকে রাখার ঘটনা ঘটে। উভয়পক্ষের পক্ষের মধ্যে মধ্যস্থতার চেষ্টা চলছে।’

বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র বিষয়ক পরিচালক (ডি.এস) ড. শরীফ হাসান লিমন বলেন, ‘জরুরি মিটিং কল করা হয়েছে, কিছুক্ষণের ভেতরেই আটকে রাখাদের ছেড়ে দেওয়া হবে।’

সূত্র জানায়, খুলনা সার্কিট হাউজ ময়দানে উন্নয়ন মেলার কারণে ১২ থেকে ২০ অক্টোবর পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের নিকট থেকে মাঠটি ব্যবহারের অনুমতি নিয়েছিল খুলনা সিনিয়র ডিভিশন ফুটবল লীগ কর্তৃপক্ষ।

শেয়ার করুন:

সংবাদ টি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ভাষা পরিবর্তন করুন




© All rights reserved © 2018 লালমনিরহাট অনলাইন নিউজ
Design BY PopularHostBD