সোমবার, ১৮ অক্টোবর ২০২১, ১১:৩৬ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
হাতিবান্ধায় যৌতুকের কারণে স্ত্রীকে নির্যাতন, মামলা আমলে নিচ্ছে না পুলিশ ৩০০ মোটরসাইকেল নিয়ে আ.লীগ প্রার্থী নুর ইসলাম আহমেদের শোডাউন কালীগঞ্জে আন্তর্জাতিক দুর্যোগ প্রশমন দিবস পালিত জনপ্রিয়তার শীর্ষে তুষভান্ডার ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান নুর ইসলাম আহমেদ কালীগঞ্জে ট্রাক্টারের ধাক্কায় আবু বক্কর সিদ্দিক নামে কলেজ শিক্ষক নিহত ‘‘আমি জনগনের সেবক হতে চাই’’ আমার লক্ষ্য উদ্দেশ্য চেয়ারম্যান হওয়া নয়-শাহ আযম নয়ন বঙ্গবন্ধুর জন্ম না হলে আজকের এই বাংলাদেশ পেতাম না- সমাজকল্যাণ মন্ত্রী নুরুজ্জামান আহম্মেদ দলগ্রাম ইউনিয়নবাসীর সেবা করতে নির্বাচনে অংশ নিতে মাঠে নেমেছেন আতাউর রহমান ছোটন কাকিনা ইউপি চেয়ারম্যান শহিদুল হক শহিদ জনপ্রিয়তার শীর্ষে কালীগঞ্জে নবাগত সাব–রেজিস্ট্রারের যোগদান
এক সপ্তাহে ভর্তি ২৩০ জন রৌমারীতে আশংকাজনক হারে বাড়ছে শিশু ডায়রিয়া

এক সপ্তাহে ভর্তি ২৩০ জন রৌমারীতে আশংকাজনক হারে বাড়ছে শিশু ডায়রিয়া

সাইফুর রহমান শামীম,কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি : কুড়িগ্রামের রৌমারীতে শিশু ডায়রিয়া আশংকাজনক হারে বাড়ছে ।গত এক সপ্তাহে ২০৯ জন শিশু ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে । দিনদিন রোগীর ভর্তির সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ায় হিমশিম খাচ্ছে চিকিৎসকরা।এদিকে হাসপাতালের বেডে জায়গা না হওয়ায় রোগীদের বারান্দায় রেখে চিকিৎসা দিচ্ছেন তারা ।হাসপাতাল সুত্রে জানা যায়, ঠান্ডা জনিত, তীব্র শীত ও রোটা ভাইরাসের কারনে শিশু ও বৃদ্ধরা এ রোগে আক্রান্ত হচ্ছে। ফলে ডায়রিয়ার প্রকোপ মারাত্মক আকার ধারন করছে । দিশেহারা হয়ে পড়েছেন শিশুর অভিভাবকরা। ২১জানুয়ারী (সোমবার) হাসপাতালে গিয়ে এ চিত্র দেখেছেন অনেকেই ।ডায়রিয়ায় আক্রান্ত শিশুদের মধ্যে উপজেলার নয়ারচর গ্রামের সিরাজুলের ছেলে রায়হান (১০) মাস, তিনতলি গ্রামের রশিদের ছেলে আনহা (৪) মাস, বাতারগ্রামের জমিলার েেময়ে ফারজানা (১১) মাস, দক্ষিণ বাইটকামারী গ্রামের দুলালের ছেলে হৃদয় (১০) মাস, কলেজপাড়ার রোকনুজ্জামানের ছেলে তাওসিব (১৩) মাস, কলাবাড়ি গ্রামের ময়নালের ছেলে রাব্বি (১৮) মাস, উত্তর খাওরিয়ারচর গ্রামের মালেকের ছেলে সজিব (৬) মাস, কর্তিমারী বাজারপাড়ার আমির আলীর ছেলে সাব্বির (২) বছরসহ প্রায় দুই শতাধিক।
শিশুরা আশংকাজনক হারে ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হলেও এখন পর্যন্ত কোন মেডিকেল টিম গঠন করা হয়নি। ফলে ডায়রিয়ার প্রকোপ ভয়াবহ আকার ধারন করতে পারে বলে ধারনা করা হচ্ছে।
আরএমও ডা.মোমেনুল ইসলাম হুমায়ুন বলেন, অতিরিক্ত ঠান্ডা আবহাওয়ায় ও কনকনে শীতের কারনে শিশুদের নিউমোনিয়া ও ডায়রিয়ার কারন হয়ে দাড়িয়েছে। এতে শিশুদের পানি শুন্যতার সৃষ্টি হচ্ছে এবং তারা খুবই কষ্ট ও দুর্বল হয়ে পড়ছে। আমাদের পর্যাপ্ত পরিমান খাবারের স্যালাইন ও অন্যান্য ওষুধ সামগ্রী রয়েছে। এসব রোগীদের সার্বক্ষনিক চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।
উপজেলা হাসপাতালের দায়িত্বরত কর্মকর্তা ডা.বোরহান উদ্দিন জানান, ঠান্ডা জনিত, তীব্র শীত রোটা ভাইরাসের কারনে শিশু ডায়রিয়া বৃদ্ধি পাচ্ছে। ইতিমধ্যে গ্রামে গ্রামে সচেতনতা জন্য ফিল্ড অফিসাররা কাজ করছেন এবং খাবার স্যালাইন বিতরন করা হচ্ছে।

 

শেয়ার করুন:

সংবাদ টি শেয়ার করুন

ভাষা পরিবর্তন করুন




© All rights reserved © 2018 লালমনিরহাট অনলাইন নিউজ
Design BY PopularHostBD